Govtjob360

Search
Close this search box.

মাসে মাসে পাবেন 3000 টাকা, এক্ষুনি নাম লেখান এই প্রকল্পে : Government Scheme

বছরের শুরুতেই এই Card নিয়ে একটি খুশির খবর প্রকাশ করল মোদি সরকার। এই কার্ড থাকলে আপনি পেয়ে যাবেন অনেক সুবিধা । নতুন নতুন কিছু নিয়ম যুক্ত করল এই কার্ডে । এই কার্ড হল কেন্দ্র সরকারের একটি আর্থিক সাহায্যের প্রকল্প। এই কার্ড থাকলে আপনি 3000 টাকা পর্যন্ত পেনশন পেয়ে যেতে পারেন ।Government Scheme 
এছাড়াও আরো বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা এই কার্ডের মাধ্যমে দেওয়া হয়ে থাকে যেমন ফ্রি সেলাই মেশিন, সাইকেল প্রভৃতি । এই প্রকল্পের আওতায় যারা আবেদন করেছেন তাদের সবাইকেই একটি করে Card দেওয়া হয়। এর মাধ্যমে দেশের যত কর্মী বা শ্রমিক আছে তাদের তালিকা তৈরি করে বিভিন্ন রকমের সুযোগ সুবিধা প্রদান করা হয়। আপনি কি এই Card বানাতে মনস্থির করেছেন ?  কি কি সুবিধা পাওয়া যায় এই কার্ড দ্বারা ? কিভাবে আবেদন করবেন ? কোন কোন ডকুমেন্ট লাগবে ? প্রভৃতি প্রশ্নের উত্তর জানতে প্রতিবেদনটি সম্পূর্ণ পড়ুন।Government Scheme 
এই প্রকল্পের নাম কি : এ প্রকল্পের নাম হল ই-শ্রম যার একটিও কার্ডও হয়ে থাকে।
E Shram Card কি 
২০২১ সালে আগস্ট মাসে শুরু করা হয়েছিল এই ই শ্রম কার্ড প্রকল্প। E Shram Card হল কেন্দ্র সরকার দ্বারা পরিচালিত একটি প্রকল্প। এই প্রকল্পের মাধ্যমে কেন্দ্র সরকার দেশের বিভিন্ন শ্রমিক বা কর্মীদের তালিকা করে । তাদেরকে বিভিন্ন সাহায্য, পেনশন প্রদান করে থাকে। দেশের অজস্র কর্মী ও শ্রমিক রয়েছে যারা দিন খেটে খায়। তাদের উন্নতি কথা মাথায় রেখে এই প্রকল্পের সূচনা। দেশের সাধারণ মানুষের কাছে অর্থ পৌঁছে দেওয়ার মাধ্যমে দেশের আর্থিক উন্নতি সম্ভব বলে অনেক বিশেষজ্ঞে মনে করেন। E Shram Card থাকলে ৬০ বছর বয়সের পর থেকে পেনশন পাওয়া যাবে।কি কি সুবিধা পাওয়া যায় ?

১. ব্যক্তির ৬০ বছর বয়স পূর্ণ হয়ে গেলে প্রতি মাসে ৩০০০ টাকা করে পেনশন পেয়ে থাকবেন।

২. আপাতকালীন কোন দুর্ঘটনা ঘটলে বা শারীরিক অক্ষম হলে এক লক্ষ টাকা পাওয়া যাবে । আর মারা গেলে দুই লক্ষ টাকা ইন্সুরেন্স পাওয়া যায়।

৩. ই -শ্রম কার্ডের সঙ্গে রেশন কার্ড ডিজিটাল ভাবে যুক্ত করলে, অন্য রাজ্যেও আপনি রেশনের সুবিধা পেয়ে যাবেন।

৪. ই শ্রম কার্ড হোল্ডার সন্তানদের জন্য ফ্রিতে সেলাই মেশিন, সাইকেল দেওয়া হয়ে থাকে।

আবেদনের জন্য যোগ্যতা

১. E- Shram কার্ডে আবেদনের জন্য আবেদনকারীর বয়স ১৬ থেকে ৫৯ বছর বয়স থাকলে আবেদন করতে পারবে।

২. E Shram Card আবেদনের জন্য ব্যক্তিকে অসংগঠনিক কর্মরত শ্রমিক হতে হবে অর্থাৎ কোন সংগঠনের সাথে যুক্ত থাকলে হবে না।

৩. যারা সরকারকে আয়কর দেন তারা E Shram Card এর জন্য আবেদন করতে পারবে না । আর এর থেকে কোন সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন না ।

প্রয়োজনীয় নথিপত্র: আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় যে স্বপ্নথিপত্র দরকার সেগুলি হল-

১. পরিচয় পত্র হিসাবে আঁধার কার্ড অথবা ভোটার কার্ড ।

২. একটি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি।

৩. ব্যাংকের একাউন্টের প্রয়োজনীয় তথ্য।

৪. মোবাইল নাম্বার সাথে দিতে হবে।

৫. প্যান কার্ড (যদি না থাকে অসুবিধা নেই)।

আবেদন করার পদ্ধতি 

১. আপনি সর্বপ্রথম ই শ্রম পোর্টালের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন। (নিচে অফিশিয়াল ওয়েবসাইটের লিংক দেওয়া হল)

২. এরপর নিজের একাউন্ট আধার লিঙ্ক করা মোবাইল নাম্বার এবং Captcha কোড দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

৩. আপনার মোবাইলে একটি otp পাঠানো হবে সেই otp লিখতে হবে ।

৪. আবেদন করার জন্য আবেদন পত্রটি সঠিক তথ্য অনুসারে নাম, ঠিকানা, বয়স দিয়ে ফিলাপ করতে হবে ।

৫ প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট আপলোড করে সাবমিট বাটন ক্লিক করতে হবে।

এভাবে আপনার ই শ্রম কার্ড রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া সফলভাবে পাঠানো হবে ।

Important Links

Telegram Channel  Join Now
WhatsApp Group  Join Now
WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

Leave a Comment