Govtjob360

Search
Close this search box.

প্রতি মাসে আয় হবে পকেট ভরতি টাকা , পুঁজি মাত্র ১০ হাজার টাকা, শুরু করুন এই ব্যবসা -Business Idea

দূষণ অর্থাৎ পলিউশন । সাম্প্রতিক সময়ে এই শব্দ টি বিভীষিকার মতো । আসলে যুগ । তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে  নিত্য নতুন প্রযুক্তির ব্যবহার । মানুষের দৈনন্দিন চাহিদার প্রয়োজনে ধ্বংস হচ্ছে গাছপালা । ফলত বাড়ছে দূষণ (Pollution) । এই প্রতিবেদন টি পড়াকালীন আপনার মনে হয়তো এই প্রশ্নই উঁকি দিচ্ছে দূষণের সঙ্গে ব্যবসার সঙ্গে দূষণের সম্পর্ক কি ? এক কথায় উত্তর হবে অবশ্যই আছে । আজ আমরা সেই সকল যুবক – যুবতীদের সামনে তুলে ধরবো এমন এক অল্প পুঁজির ব্যবসার কথা যা অতপ্রত ভাবে জড়িয়ে রয়েছে দূষণ সম্পর্কিত বিষয়ে ।

 

সরকারি হোক বা বেসরকারি সাম্প্রতিক সময়ে চাকরির বাজারের যা অবস্থা টা নতুন করে না বলাই ভালো । আসলে কথায় আছে বাণিজ্য বসতে লক্ষ্মী । তার ওপর চাকরিতে যেমন ধরা বাঁধা মাস মাইনা তেমনি পরের গোলামী । এই অবস্থায় অগত্যা চাকরির বাজারে  না ছুটে অনেক যুবক – যুবতীরাই ছোটখাটো ব্যবসা করে নিজের জীবন কে আর্থিক ভাবে স্বাবলম্বি করতে চাই । আজ আমরা সেই সকল যুবক – যুবতীদের জানাতে চলেছি দূষণ কে হাতিয়ার করে কিভাবে আপনি মাত্র ১০ হাজার পুঁজিতে শুরু করবেন আপনার নতুন ব্যবসা । যা থেকে প্রতি মাসে  সহজেই কামিয়ে নিতে পারেন হাজার হাজার টাকা । তাহলে চলুন বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক ।

এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা বলছেন বর্তমান বাজারে মোটর বাইক কিংবা হালকা অথবা ভারী যানবাহনের অন্ত নেই । আর যানবাহন মানেই দূষণের ছড়াছড়ি । কিন্তু দূষণ ঠেকাতে সরকারও আঞ্ছে কড়া দাওয়াই । এই অবস্থায় অল্প পুঁজিতে সরকারি গাইড লাইন মেনে আপনি যদি দূষণ পরীক্ষা কেন্দ্র খোলা যায় তাহলে বাজারের চাহিদা অনুযায়ী ব্যবসা চলবে গম গম করে । প্রতিমাসে ইনকাম হবে কয়েক হাজার টাকা ।

সাম্প্রতিক ২০২০ সালে নতুন মোটর যান আইন কার্যকর করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। সেই নতুন নিয়ম লাগু হওয়ার পর থেকে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নথি হয়ে উঠেছে পলিউশন সার্টিফিকেট বা দূষণ শংসাপত্র (পিইউসি)। কারণ এই সার্টিফিকেট না থাকলে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা হতে পারে। অর্থাৎ গাড়ি থাকলেই দূষণ অর্থাৎ পলিউশন সার্টিফিকেট থাকতেই হবে না হলেই পড়তে হবে সরকারি নিয়মের গ্যাঁড়াকলে , পকেট থেকে খসে যাবে মোটা টাকা । অথচ পলিউশন সার্টিফিকেট বানাতে খরচও তেমন বেশি না – ২০ টাকা থেকে ২০০ টাকার মধ্যে।

এই অবস্থায় মানুষের দৈনন্দিন চাহিদা অনুযায়ী আপনি যদি দূষণ পরীক্ষা কেন্দ্র খুলতে পারেন তাহলে গ্রাহক তার নিজের প্রয়োজনে আসবে আপনার দোর গড়ায় । কিন্তু এই ব্যবসা শুরু করতে হলে আপনাকে যে যে কাজ গুলি করতে হবে টা এই রকম ,

১) মাত্র ১০ হাজার টাকা খরচ করে আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন ।

২) প্রথমেই আঞ্চলিক পরিবহণ অফিস বা রিজিওনাল ট্রান্সপোর্ট অফিস (আরটিও)-এ গিয়ে লাইসেন্সের জন্য আবেদন করতে হবে। এর পরে লোকাল অথরিটির কাছ থেকে একটি ‘নো ওবজেকশন সার্টিফিকে’ট (এনওসি) নিতে হবে।

৩) দূষণ পরীক্ষা কেন্দ্র খুলতে হবে হলুদ রঙের একটি কেবিনে। কারণ হলুদ রঙের কেবিন দূষণ তদন্ত কেন্দ্রের পরিচয় বলে মনে করা হয়।

৪) এছাড়া এই কেন্দ্র খুললে সেখানে লাইসেন্স নম্বর লেখাও বাধ্যতামূলক ।

৫) এই ব্যবসা করলে প্রতিদিন ২ হাজার টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। অর্থাৎ মাসে প্রায় ৬০ হাজার টাকা আয় করা সম্ভব। তবে যানবাহনের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে দূষণ সার্টিফিকেটের চাহিদা যে দিনের পর দিন বাড়ছে সে কথা বলাই বাহুল্য ।

written by – Somnath Pal .
Join Telegram Channel : Click Here
TAG – #NEW IDEA #BUSINESS #SELF EMPLOYMENT #TIPS #POLLUTION CONTROL

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

Leave a Comment